মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

ভাষা ও সংস্কৃতি

প্রথম মানুষ কবে
এসেছিল এই সবুজ মাঠের ফসলের উৎসবে!
দেহ তাহাদের এই শস্যের মতো উঠেছিল ফলে
এই পৃথিবীর ক্ষেতের কিনারে, সবজীর কোলেকোলে।
সে কোন প্রথম ভোরে----
প্রথম মানুষ আসিল প্রথম মানুষীর হাত ধরে
ভাল লেগেছিল এদেহের ক্ষুধা- শস্যের মতোসাধ!
এই আলো আর ধুলোর পিপাসা, এই শিশিরের স্বাদ
ভালো লেগেছিল- বুকে তাহাদের জেগে ছিল আহ্লাদ
নীল আকাশের প্রথম রৌদ্র ক্ষেতে পড়েছিল ঝরে!
আদিম

জীবনানন্দদাস

৫ নং গোগ্রাম ইউনিয়ন বরেন্দ্র অঞ্চল গুলোর মধ্যে এই ইউনিয়নের মানুষের মধ্যে জড়িয়ে রয়েছে আদিম ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির ছোঁয়া।

“বাংলাদেশের ভূপ্রাকৃতিক অবস্থাবিশ্লেষণ করে অনুমান করাযায় সুদূরঅতীতে বাংলাদেশের উত্তর পশ্চিমাঞ্চলের লালপলিমাটিতে গঠিত বরেন্দ্র অঞ্চলে প্রথম পশ্চিম দিক থেকে আগত আদিম মানুষের পদার্পণ ঘটে ও কৃষিকে জীবিকা হিসেবে গ্রহণ করে তারা এ অঞ্চলে স্থায়ী ভাবে বসবাস শুরু করে।”

এ অঞ্চলে বর্তমানে উড়াও, সাঁওতাল, পাহান, মালো, মাহালী, মুন্ডা, মইশর সহ বিভিন্ন ধর্ম বর্নের ও বিভিন্ন ভাষা সস্কৃতির মানুষের বসবাস। এদের প্রত্যেকেরই রয়েছে ঐতিহ্যবাহী নিজস্ব সংস্কৃতি। অন্য ভাবে বলতে গেলে এই আদিবাসীরাই প্রাচীন সংস্কৃতির ধারক ও বাহক। কিন্তু নানা কারনে হারিয়ে যাচ্ছে আদিবাসীদের ঐতিহ্যবাহী নিজস্ব সংস্কৃতি। এই জন্য আদিবাসীরাও দায়ি বলে অভিমত ব্যক্ত করেছেন আদিবাসী নেতারা। 

এখানকার আদিবাসীরা কারামপূজা, সহরাইপূজা, বাহা উৎসব, ফাগুয়া উৎসব পালন করে থাকে। এসব উৎসবে আদিবাসীরা  ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠানের পাশাপাশি নিজস্ব ভাষায় গান ও নৃত্য পরিবেশন করে।


Share with :

Facebook Twitter